দেশপ্রেম ও দেশপ্রেমিকেরা

What is your dream destination?

দেশপ্রেম ও দেশপ্রেমিকেরা

কর্মতত্পর ঢাকা শহরটাকে খেয়াল করে দেখেছেন? শুধু খালি চোখে দেখা না, একটু মনোযোগ দিয়ে দেখা।

রুদ্ধশ্বাসে গাড়ি ছুটে চলছে – অনেক্ষণ ট্রাফিকে আটকে থেকে সবাই প্রচন্ড বিরক্ত, এই বারের সিগনালটা পার হতে না পারলেই মনে হয় আটকে যাবো আরো ২০ মিনিট। যেভাবেই হোক সিগনালটা পার হতে হবে, সবাই প্রায় মাইকেল শুমাখারের চেয়েও বেশী গতিতে ছুটছে। হঠাৎ ট্রাফিক পুলিশ রাস্তার মাঝখানে এসে পড়লেন, সিগনাল তো কাজ করছে না, তাকেই সামলাতে হবে সব – শীত, গ্রীষ্ম, বর্ষা সবসময়ই, যত গতিতেই গাড়িগুলো আসুক, যতই ঠান্ডা পরুক, যতই রোদ উঠুক, যতই পানিতে ডুবে যাক রাস্তাঘাট।

পুরনো ঢাকার ব্যস্ত রাস্তা, বড়জোড় ১০ ফিট চওড়া – লোকে লোকারণ্য আর সাথে অজস্র গাড়ির ভীড়। এখানে এক পা এগোনো আমাজন এর জঙ্গলে হাটার চেয়ে কম কঠিন না। সামনে এগোবেন কিভাবে বা আদৌ সামনে যাওয়া ঠিক হবে কিনা একথা যখন ভাবছেন, ঠিক তখনি, প্রায় নিজের শরীরের সমান ওজনের বোঝা নিয়ে দৌড়াতে দেখলেন কিছু লোককে – তাদের এতকিছু ভাবার সময় কই? দোকানে সময়মত মাল পৌঁছে দিতে হবে যে!

ঈদের দিন। পরিবার বা বন্ধু বান্ধবদের সাথে বসে আনন্দ করছেন নিজের বাসায় অথবা কোনো পার্কে; ছুটি এবার মাত্র ৫ দিনের এটা ভেবে আফসোস করছেন, আরাম করছেন ঠান্ডা হাওয়াতে। ঠিক একই সময় কোনো এক মেডিকেল এর এমের্জেন্সি ইউনিট এ কোনো ডাক্তার এক রুগীর হাত ধরে বসে আছেন – গরমে ঘামতে ঘামতে ভাবছেন, লোকটাকে বাচিয়ে রাখা যাবে কী?

বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৭০০০ মাইল দুরে, কোনো এক বাংলাদেশী -৪০ ডিগ্রী শীতের রাতে জেগে বসে আছেন। নিজের কোম্পানির কিছু কাজ বাংলাদেশে পাঠিয়েছেন, দেশের কোনো এক কোম্পানি করবে বলে। উপরের লেভেলের লোকদের রাজি করানোর জন্য কম ঝক্কি পোহাতে হয়নি। তারপর আবার টাইমজোন এর চক্করে রাত জেগে মিটিং করা – কিন্তু ক্লান্তি তাকে ছুঁতে পারেনি, দেশের কিছু ভালোর জন্য কাজ করতে আবার ক্লান্তি কিসের?

আমরা যেখানেই থাকি, যে অবস্থাতেই থাকি – আমাদের দক্ষতা, শিক্ষা যাই হোক না কেনো, আমরা কিন্তু সবাই কাজ করে যাচ্ছি – দেশের জন্য। নিজের অগোচরেই, দেশকে একটু একটু করে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। আমাদের সৌভাগ্য যে আমাদের চারপাশে এত মানুষ। কর্মতত্পর সব হাসিমুখ। কত সীমাবদ্ধতার মাঝখানেও – অনন্ত ভালবাসা, অপরিসীম শান্তি।

তারপরেও আমাদের সামনে এগোনোর গতি কিন্তু খুব মন্থর। পনের কোটি মানুষের অবিরাম কাজ করে যাওয়ার বিপরীতে যে কাজ করে যাচ্ছে হাজার খানেক অথবা হাজার পাঁচেক লোকের লোভ, অসংযম, অদূরদর্শিতা আর স্বার্থপরতা।

ইস, সেই হাজার পাঁচেক লোক যদি পনের কোটির সাথে যোগ দিতেন – তাদের হৃদয় যদি দেশের জন্য ভালবাসায় পূর্ণ না হোক অন্তত, শূন্য না হত!

I’ve stepped in the middle of seven sad forests
I’ve been out in front of a dozen dead ocean
I saw a newborn baby with wild wolves all around it
I saw ten thousand talkers whose tongues were all broken
I heard ten thousand whisperin’ and nobody listening
I heard one person starve, I heard many people laughing
Where hunger is ugly, where the souls are forgotten
Where black is the color, where none is the number.

A Hard Rain’s a – Gonna Fall – Bob Dylan
Fuad Omar

Fuad Omar

LEAVE A COMMENT